Campus Pata 24
ঢাকাTuesday , 4 June 2024
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ক্যাম্পাস
  5. খেলাধুলা
  6. চাকরির খবর
  7. জাতীয়
  8. তথ্যপ্রযুক্তি
  9. বিনোদন
  10. ভ্রমণ
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা জগৎ
  15. সারাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পরিবার কি, মানব সভ্যতার সংগ্রহে পরিবার গঠনের প্রয়োজনীয়তা

Link Copied!

সাধারণভাবে পরিবার বলতে বোঝায় কতিপয় ব্যক্তির সমষ্টিকে যারা একত্রে বসবাস করে এবং যাদের মধ্যে প্রত্যক্ষ ও আন্তরিক সম্পর্ক বিরাজ করে। বিবাহ, রক্ত সম্পর্ক ও আত্মীয়তা সূত্রের বন্ধনে আবদ্ধ একটি সামাজিক গোষ্ঠী (Social Group) হলো পরিবার। যেখানে মা বাবা ভাই বোন দাদা দাদী বসবাস করে তাকে পরিবার বলে।
পরিবারের গুরুত্ব: পরিবারের গুরুত্ব পাশ্চাত্য সমাজ দেরীতে হলেও বুঝতে পেরেছে। আর তাই তারাও পালন করছে ‘পরিবার দিবস’, ‘মা দিবস,‘বাবা দিবস’ইতাদি। এ সকল দিবস পাশ্চাত্যের জন্য অত্যাবশ্যকীয়। প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে জানা যায়, সমাজের গণ্যমান্য চিন্তাশীল ব্যক্তিগণ বাংলাদেশের বর্তমান পারিবারিক সমস্যা ও ব্যবস্থাপনা নিয়ে তাদের উদ্বেগ ও হতাশা ব্যক্ত করেছেন। বিবেকবান ব্যক্তিগণ সমাজের অবক্ষয় রোধে ‘পারিবারিক বন্ধন’ মজবুত করতে সমাজের নিকট আহবান জানিয়েছেন। পাশ্চাত্য সমাজ বস্তুবাদের রঙিন নেশায় বুঁদ হয়ে পরিবার প্রথাকে উপেক্ষা করেছে।
ফলে আদর-স্নেহ, মায়া-মমতা বঞ্চিত বন্ধনহীন এসব শিশু-কিশোর যুবক-যুবতী তথা আপামর জনতা অবৈধ যৌনাচারসহ নানাবিধ অন্যায়-অপকর্মে জড়িয়ে পরেছে। কিছু দেশি-বিদেশি এনজিও ও সংস্থা পাশ্চাত্য অবস্থা সৃষ্টির লক্ষ্যে ধর্ম ও পরিবার প্রথাকে ভেঙে দেয়ার জন্য গোপনে ও প্রকাশ্যে কাজ করে যাচ্ছে বহুদিন ধরে। ডিস, সিডি, ইন্টারনেট, মোবাইল, সাইবার-ক্যাফে ইত্যাদির মাধ্যমে পর্ণোছবি দেখা, ব্লাক মেইলিং বেড়ে গেছে। ইভটিজিং সামাজিক ব্যাধি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতদ্ব্যতীত অশালীন ড্রেস, ফ্যাশন, রূপচর্চা, ফ্রিমিক্সিং, যত্রতত্র আড্ডা, প্রেমালাপ, যৌনাচার, পরকীয়া, মাদক, সন্ত্রাসের সয়লাব সর্বত্র বইছে। এ সকল কাজে প্রচুর অর্থের প্রয়োজন হয়।
এ অর্থ জোগাড় করতে গিয়ে পরিবারের সাথে বচসা, মনোমালিন্য, চুরি-ডাকাতি-ছিনতাই, কিডন্যাপ, খুন-খারাবী কিছুই বাদ যাচ্ছে না। অভিজাত এলাকাগুলোর পিতা-মাতা, যুবক-যুবতী সন্তানদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ, তারা যেন সন্তানের নিকট এক ধরনের জিম্মি হয়ে আছেন। ঘরে ঘরে অশান্তির আগুন দাউ দাউ করে জ্বলছে। নিঃসন্দেহে পরিবারগুলোর অশান্তির প্রভাব সমাজে প্রতিফলিত হচ্ছে। সমাজ ও রাষ্ট্রীয় প্রশাসন যেন পিতামাতার মতই অসহায়! আর্থিক-নৈতিক-সামাজিক ক্ষতির পাশাপাশি শারীরিক ও মানসিকভাবে ভেঙে পড়ছেন সন্তান-গার্ডিয়ানসহ সংশ্লিষ্ট অনেকে।
অপরদিকে যুব সমাজের কল্যাণময় অবদান থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ব্যক্তি,পরিবার-সমাজ-রাষ্ট্র! যে সকল যুবক-যুবতী উচ্ছৃক্মখল অনৈতিক জীবন যাপন করে,শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সমাজে নানা সমস্যা সৃষ্টি করে চলছে,খোঁজ নিলে দেখা যাবে,তাদের অধিকাংশের পরিবারই উদাসীন, সন্তানের প্রতি সঠিক দায়িত্ব পালন করেন না। এদের মধ্যে বেশিরভাগই ‘ধনী শ্রেণী’ ও ‘দরিদ্র বস্তিবাসী।’
এদের মাঝে ধর্ম,সংস্কৃতির চর্চা,পারিবারিক বোঝাপড়া,পারস্পরিক দায়িত্ব-কর্তব্যবোধ নেই বললেই চলে। ধনী শ্রেণী বৈধ-অবৈধ পন্থায় টাকা রোজগার এবং ভোগ বিলাসেই মত্ত থাকে বেশির ভাগ সময়। সন্তানের চাহিবামাত্র টাকা-পয়সা, কাপড়-চোপড়, দামি মোবাইল, গাড়ি ইত্যাদি কিনে দিয়েই খালাস। অন্ধস্নেহে সন্তানের কোন ভুলত্রুটি গার্ডিয়ানের চোখে ধরা পরে না। দরিদ্র শ্রেণীর তো ‘নূন আনতে পান্তা ফুরায়’ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অশিক্ষা-কুশিক্ষায় এদের সন্তানরা ব্যাঙের ছাতার মত বেড়ে ওঠে। এ সন্তান একটু বড় হলেই রোজগারে লাগিয়ে দেয়। ফলে এই শ্রেণীর সন্তানদের মাঝেই অপরাধ প্রবণতাও স্বাভাবিকভাবেই বেশি। অপরদিকে, মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারগুলোই মোটামুটি সমাজের বিবেকবান বা সচেতন সমাজ বলা যায়।
এসব পরিবারই এতদিন সমাজের শান্তি-শৃঙ্খলা ভারসাম্য ধরে রেখেছিলেন। এ সকল পরিবারের অভিভাবকগণ সন্তানদের লেখাপড়ার পাশাপাশি আদব-কায়দা, ভদ্রতা, শালীনতা, দায়িত্ব-কর্তব্যবোধ নৈতিকতা ইত্যাদি অত্যন্ত আন্তরিকতা ও যত্নের সাথে শিক্ষা দিয়ে থাকেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো, এ অংশেও এখন ফাটল ধরেছে, যা সত্যিই অত্যন্ত উদ্বেগের বিষয়। পিতামাতা অভিভাবকগণ এসব ব্যাপারে আগের মত সিরিয়াস নন, তারাও অর্থের পিছনে ছুটছেন। সন্তানকে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করাই একমাত্র বা প্রধান উদ্দেশ্য-লক্ষ্য, নীতি-নৈতিকতা গৌন হয়ে গেছে। সন্তানদের আগের মত সময় দেয়ার সময় নেই, সন্তানও যেন আগের মত কথা শুনছে না। তথাকথিত প্রগতি বা উন্নয়নের জোয়ারে যেন গা ভাসিয়ে দিয়েছে ছোট বড় সকলে। ফলে সমাজ ব্যবস্থা দ্রুত নষ্ট ও দূষিত হয়ে যাচ্ছে।



সালাউদ্দিন/সাএ

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করা হয়। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।